তিন উপজেলার ‘উপায়’ এর ডিস্ট্রিবিউটর হলেন তরুণ উদ্যোক্তা জনি

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশে এখন মোবাইল ব্যাংকিংয়ের গ্রাহক প্রায় ১০ কোটি। এর মধ্যে ৭০ শতাংশ বা প্রায় ৭ কোটি গ্রাহক লেনদেন করেন ফিচার (বাটন) ফোনে ইউএসএসডি কোডের মাধ্যমে।

তরুণ উদ্যোক্তা ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা বাঞ্ছারামপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ১২নং উজানচর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান কাজী জাদিদ- আল- রহমান (জনি) ‘উপায়’র তিনটি উপজেলা হোমনা- বাঞ্ছারামপুর- তিতাসের ডিলার হলেন।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে ইউএসএসডি কোডের বিকাশ এবং রকেট এর ক্যাশআউট চার্জ প্রতি এক হাজার টাকায় ১৮ দশমিক ৫০ টাকা। ডাক বিভাগের মোবাইল ব্যাংকিং প্রতিষ্ঠান নগদ নিচ্ছে ১৪ দশমিক ৯০ টাকা। কিন্তু উপায় দিচ্ছে সবচেয়ে কম রেট ১৪ টাকায়।

উপায় লেনদেনের পরিমানও কম না। ফিচার (বাটন) ফোনে ইউএসএসডি কোডের মাধ্যমে লেনদেনের খরচ কমিয়ে আনার উদ্যোগ নিয়েছে কিছুদিন আগে যাত্রা শুরু করা ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের মোবাইল ব্যাংকিং সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান উপায়।

এ বিষয়ে হোমনা- বাঞ্ছারামপুর- তিতাস উপায় এর ডিলার কাজী জাদিদ-আল- রহমান (জনি) বলেন, বাংলাদেশের প্রায় ৭০ শতাংশ মোবাইল লেনদেন সম্পন্ন হয় ইউএসএসডির মাধ্যমে। এই ব্যবহারকারীরা মূলত সমাজের সুবিধাবঞ্চিত, দরিদ্র ও স্বল্প আয়ের মানুষ। এই জনগোষ্ঠীর সুবিধার কথা ভেবেই ইউএসএসডির মাধ্যমে লেনদেনকারীদের জন্য বাজারের সবচেয়ে কম রেটে ক্যাশ আউট চার্জ নির্ধারণ করেছে উপায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*