ছবি : সংগৃহীত

মিখাইল মিসুস্তিন রাশিয়ার নতুন প্রধানমন্ত্রী

রাশিয়ার নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে মিখাইল মিসুস্তিনকে নিয়োগ দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে দিমিত্রি মেদভেদের পদত্যাগের ঘোষণার পর মিসুস্তিনকে নিয়োগ দেন তিনি।

বুধবার পার্লামেন্টে জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে প্রধানমন্ত্রীসহ অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ পদে নির্বাচনে পার্লামেন্টকে ক্ষমতা দেওয়ার প্রস্তাব

দেন ভ্লাদিমির পুতিন। প্রেসিডেন্টের থেকে প্রধানমন্ত্রীকে বেশি ক্ষমতা দেওয়ার সুপারিশ করা হয়েছে। এই প্রস্তাব বাস্তবায়নে প্রয়োজনে দেশব্যাপী গণভোটও চেয়েছেন পুতিন।

ভ্লাদিমির পুতিন দেশটির সাংবিধানিক পরিবর্তনের প্রস্তাব দেয়ার পর দেশটির  সরকার পদত্যাগ করে।

ভাষণে পুতিন বলেন, রাশিয়ায় বড় ধরনের সাংবিধানিক পরিবর্তনের প্রয়োজন। প্রধানমন্ত্রীসহ অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ পদের নির্বাচনে পার্লামেন্টকে ক্ষমতা দেয়ার প্রস্তাব দেন তিনি। দেশের সাংবিধানিক পরিবর্তনের জন্য গণভোটেরও প্রস্তাব দেন পুতিন।

এদিকে পুতিনের কাছে পদত্যাগপত্র দেয়ার পর দিমিত্রি মেদভেদ এখন রাশিয়ার প্রভাব বিস্তারকারী নিরাপত্তা পরিষদের প্রধান হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন।পুতিনের দীর্ঘদিনের সহযোগী মেদভেদ ২০১২ সাল থেকে রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী পদে আসীন। এর আগে ২০০৮-১২ পর্যন্ত তিনি ছিলেন সেদেশের প্রেসিডেন্ট। রাষ্ট্রীয় টিভিতে সম্প্রচারিত এক অনুষ্ঠানে সরকারের পদত্যাগের কথা ঘোষণা করেন মেদভেদ। সে সময় তার পাশেই বসে তাকে তার কাজের জন্য ধন্যবাদ জানান পুতিন।

মিখাইল মিশুস্তিন এর আগে রাশিয়ার কর বিভাগের প্রধান হিসেবে দ্বায়িত্ব পালন করেছেন। ৫৩ বছর বয়সী মিশুস্তিন ১৯৯৯ সাল থেকে সরকারে কাজ করছেন। তিনি ২০১০ সাল থেকে ফেডারেল ট্যাক্স সার্ভিসের প্রধানের দায়িত্ব পালন করছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*