শিশুর পানিশূন্যতার লক্ষণ ও করণীয়

শিশুরা বড়দের তুলনায় বেশি দুর্বল হয়ে থাকে। কারণ বড়দের তুলনায় শিশুদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা অনেক কম থাকে। তাই শিশুদের প্রতি বেশি যত্ন নিতে হবে।
নজর রাখতে হবে শিশুর খাবার থেকে শুরু করে তার ওজন ও সুস্থতার প্রতিও। শিশুদের কিছু কিছু রোগ এমন থাকে যা বোঝা কঠিন হয়ে পারে। এর মধ্যে শিশুর পানিশূন্যতা একটি। তাইতো বড়দের এসব ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক যেসব লক্ষণে বুঝবেন শিশু পানিশূন্যতায় ভুগছে এবং তার প্রতিকার সম্পর্কে-
> শিশু কান্না করলে যদি তার চোখ দিয়ে পানি না পড়ে, তাহলে বুঝতে হবে পানিশূন্যতা।
> দিনের বেশিরভাগ সময়ই সে ঘুমিয়ে যায়। শিশুর মধ্যে এরকম লক্ষণ দেখা দিলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।
> শিশুর শরীরে পানির ঘাটতি হলে ঠোঁট ও মুখের চারপাশ শুকিয়ে যাবে।
> পানিশূন্যতার কারণে মাঝেমধ্যে হাত ও পা অস্বাভাবিক রকম ঠাণ্ডা বা গরম হতে পারে।
> শিশুর শরীরে পানির ঘাটতি হলে প্রস্রাব গাঢ় হলুদ রঙের হয়।
করণীয়
> পানিশূন্যতা রোধ করার জন্য খাবার স্যালাইন ও অন্যান্য তরল খাবার শিশুকে বারবার দিন। পানি, ভাতের মাড়, চিড়ার পানি, ডাবের পানি, টক দই, ঘোল, ফলের রস ও লবণ গুড়ের শরবত খেতে দিতে হবে।
> শরীর থেকে যে পানি ও লবণ বের হয়ে যায় তা স্যালাইন পূরণ করে মাত্র। তাই সঙ্গে অবশ্যই স্বাভাবিক খাবার দিতে হবে।
> শিশুর বয়স ছয় মাসের কম হলে তাকে বারবার মায়ের দুধ খেতে দিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*