পরিকল্পনা আটকে দেয়ার হুমকি তুর্কীর ন্যাটোর প্রতি হুঁশিয়ারি পুতিনের

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিন মার্কিন নেতৃত্বাধীন ন্যাটো জোটকে তার দেশের সীমান্তের দিকে এগিয়ে নেয়ার ব্যাপারে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন।তিনি বলেছেন, পূর্ব দিকে ন্যাটো জোটের সম্প্রসারণ তার দেশের জন্য হুমকি হয়ে দেখা দিয়েছে। প্রসিডেন্ট পুতিনের এক বক্তব্যের বরাত দিয়ে মঙ্গলবার বার্তা সংস্থা ইন্টারফ্যাক্স জানিয়েছে, সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নকে প্রতিহত করার জন্য এক সময় ন্যাটো প্রতিষ্ঠা হয়েছিল।

কিন্তু সোভিয়েত ইউনিয়নের পতনের পরও এই সামরিক জোটকে ধরে রাখা হয়েছে এবং এর সম্প্রসারণ ঘটানো হচ্ছে। পুতিন স্পষ্ট ভাষায় বলেন, পূর্ব দিকে ন্যাটোর সম্প্রসারণকে তার দেশে মারাত্মক হুমকি বলে মনে করছে। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট বলেন, তার দেশ বহুবার ন্যাটোর সঙ্গে সহযোগিতা করার আগ্রহ প্রকাশ করেছে এবং আশা করছে এই সামরিক জোট রাশিয়ার ক্ষতি হয় এমন কোনো পদক্ষেপ নেবে না। লন্ডনে ন্যাটো জোটের দুদিনব্যাপী সম্মেলন শুরু হয়েছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের এই সম্মেলনে বক্তব্য রাখার কথা রয়েছে। সাম্প্রতিক সময়ে পূর্ব ইউরোপের সাবেক সোভিয়েত বলয়ভুক্ত বহু দেশকে ন্যাটো জোটে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে এবং এ ব্যাপারে শুরু থেকেই মস্কো প্রতিবাদ জানিয়ে আসছে। অপরদিকে, ন্যাটো কুর্দিশ পিপল’স প্রটেকশন ইউনিটকে (ওয়াইপিজি) সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে স্বীকৃতি না দিলে এই জোটের বাল্টিক দেশগুলোর জন্য নেয়া প্রতিরক্ষা পরিকল্পনা আটকে দেয়ার হুমকি দিয়েছে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়িপ এরদোগান।

তুরস্ক রুশ ক্ষেপণাস্ত্র কেনায় এবং উত্তর সিরিয়ায় সম্প্রতি সামরিক অভিযান চালানোয় অনেকটা উদ্বেগের মধ্য দিয়ে ন্যাটোর ৭০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বুধবার আয়োজিত এক বৈঠক শুরু হয়। তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এদিন ব্রিটিশ রাজধানীর উদ্দেশে দেশত্যাগের আগে এক সংবাদ সম্মেলনে ওয়াইপিজির বিরুদ্ধে লড়তে সবাইকে নিশর্তভাবে সমর্থন দেয়ার আহ্বান জানান। এটিকে সন্ত্রাসী সংগঠন মনে করে তুরস্ক। তিনি বলেন, সন্ত্রাসী সংগঠনগুলোর হুমকির বিরুদ্ধে সক্রিয়ভাবে কাজ করা দরকার ন্যাটোর।পার্সটুডে,আল-জাজিরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*