কার্টুনিস্ট - রাকিব হাসান অপু

কিম কি ট্রাম্পের ভাব মুর্তি উদ্ধারে ব্যবহৃত হলেন?

সিউল থেকে বুলবুল আহমেদ – কবি ও প্রাবন্ধিক

বলা যায় নিষিদ্ধ বা অবরুদ্ধ এক দেশের এক নেতা আজ বিশ্বমঞ্চ একাই মাতিয়ে রাখলেন। ট্রাম্প তাকে পার্শ্ব নেতা বানাতে চেয়েছিলেন কিন্তু নায়ককে কি খল নায়ক বানানো যায়? কলকল করতে থাকা ট্রাম্প নিশ্চুপ কিমের ব্যক্তিত্বের কাছে বারবার মার খেয়ে খেয়ে উঠে দাঁড়াতে চেষ্টা করেছে শুধু। কি হবে আর কি হয়েছে এই সত্য জানার বা বোঝার জন্য যদিও অনেকটা সময় অপেক্ষা করতে হবে তবুও আপাত দৃষ্টিতে একটা “সাফল্য রং” লাগাতে ট্রাম্প ও তাঁর মিত্রদের চেষ্টার কোন কমতি ছিলনা। একটা উৎসব উৎসব ভাব বিরাজ ভাব ছিল বিশ্বের প্রধান গণমাধ্যম গুলোতে। ঝলমলে সমুদ্রদেশ সিংগাপুর সিটি যেন মৎস্যকন্যা রুপে সেজে ছিল। কোরিয়ান-ইংরেজি ভাষার ব্যাকবোর্ড আর আমেরিকা-উত্তর কোরিয়ার পতাকার নীল-সাদা রঙ একাকার হয়ে গিয়েছিল পুরো অনুষ্ঠানটিতে। নিজস্ব ভাষায় ও গণ্ডিতে কোরিয়ার গণমাধ্যমের ভুমিকা ছিল আরো বেশি উজ্জ্বল আর প্রাণবন্ত।

কিম কি ট্রাম্পের ভাবমুর্তি উদ্ধারে ব্যবহৃত হলেন? আজকের এই সাদামাটা ও নিষ্পাপ ট্রাম্প ক্ষমতা গ্রহণের পর বিশ্ব রাজনীতিতে যে ঢেউটি এখন পর্যন্ত দিয়ে চলেছেন সেখানে ‘আমেরিকা ফার্স্ট’ এর স্লোগানেরই প্রতিধ্বনি শোনা গিয়েছি খুব বেশি । ‘আমার পৃথিবী’ বোধ থেকে একটি সাম্রাজ্যবাদী বোধে আটকে পরা থেকে বেড়িয়ে আসতে আমেরিকার তথা ট্রাম্প এর জন্য উত্তর কোরিয়া বলা যায় টনিক হিসাবে ব্যবহৃত হয়ে গেলো। মধ্যপ্রাচ্যসহ নানা জায়গায় এবং ট্র্যাম্পের নিজস্ব চলনে ভাবমুর্তির যে অধঃপাত ঘটেছিল উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন তা উদ্ধারেই কি ব্যবহৃত হলেন? আজকের ট্রাম্প সংবাদ সম্মেলনে তাঁর চিরাচরিত স্বভাবের বাইরে অনেক বেশি সংযত ও বুদ্ধিদীপ্তভাবে নিজেকে উপস্থাপন করতে চেয়েছেন এবং দেখা দৃষ্টিতে সফলও হয়েছেন। একটা উজ্জ্বল ভাবমুর্তি কেন প্রয়োজন ট্র্যাম্পের? ব্যবসায়ী থেকে রাজনীতিবীদ বনে যাওয়া ট্রাম্প আর কি চান? বর্তমান বা আগামী যে কোন সময়ের প্রধান বিশ্বশক্তি ও মর্যাদাপূর্ন দেশ আমেরিকার রাষ্ট্রপতি তিনি। বয়োবৃদ্ধ এই মানুষটি কি নোবেল জয়ের প্রতিযোগিতায় নেমেছেন? আগামী ডিসেম্বর কি পৃথিবী তেমনি এক ঘোষণার জন্য প্রস্তুত হচ্ছে ? যদি তাই হয় তাঁর জন্য উত্তর কোরিয়া আর তাঁর নেতা কিম জং উন সত্যি এক মোক্ষম অস্র বটে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*