দেশের মানুষ এখন ইলেকশনের মুডে, আন্দোলনের মুডে নেই- ওবায়দুল কাদের

ডেস্ক নিউজঃ সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপিকে সমাবেশের অনুমতি না দিলে বলে গণতন্ত্র হরণ করা হয়েছে, আর দিলে বলে সরকার বাধ্য হয়েছে। বিএনপিকে নিয়ে আমরা কী করি!

বুধবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন। আগামী ২৯ মার্চ সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ করার ঘোষণা দিয়েছে বিএনপি। কিন্তু এখনও অনুমতি মেলেনি। এ বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপিকে সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হবে কি না, সেটি ডিএমপি কমিশনারের ব্যাপার। তারা বিএনপির সমাবেশকে নিরাপদ মনে করলে অনুমতি দেবে, নিরাপদ মনে না করলে অনুমতি দেবে না।

 

এই সমাবেশের অনুমতি দেওয়া, না দেওয়া নিয়েই আমরা বেকায়দায় আছি। অনুমতি দিলে বলে সরকার বাধ্য হয়ে অনুমতি দিয়েছে। আবার অনুমতি না দিলে বলে দেশে গণতন্ত্র নাই। এটাই তো বিএনপির ন্যাচার। এভাবেই তো তারা কথা বলছে।’

এ বিষয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘স্বাধীনতা দিবসে তারা শোভাযাত্রা করলো, সেটা কি সরকার স্বৈরতান্ত্রিক কায়দায় দেশ চালাচ্ছে। সরকারকে বাধ্য করতে গত ৯ বছরে ৯ মিনিটের জন্যও বিএনপি কিছু করে দেখাতে পারেনি। তাদের শাসনামলেও আমাদের এমন দিন গেছে যে আমরা আমাদের পার্টি অফিসের সামনে পর্যন্ত দাঁড়াতে পারিনি। দেশের মানুষ এখন ইলেকশনের মুডে, কেউ আর আন্দোলনের মুডে নেই।’

নির্বাচনী প্রক্রিয়া অনুযায়ী দেশে যথাসময়ে জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে উল্লেখ করে কাদের বলেন, নির্বাচনের সময় প্রধানমন্ত্রীর (শেখ হাসিনা) পদত্যাগের প্রশ্নই আসে না। প্রধানমন্ত্রী পদত্যাগ করলে দেশ চালাবেন কে? (বিএনপি চেয়ারপারসন) খালেদা জিয়া কি কারাগার থেকে বেরিয়ে এসে দেশ চালাবেন?

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, নির্বাচনে আসা না আসা বিএনপির নিজেদের ব্যাপার। সরকার কেন তাদের নির্বাচনে ডাকবে?

নির্বাচনকালীন সরকার গঠন নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সংসদে প্রতিনিধিত্বকারী দলগুলোর মাঝ থেকে নির্বাচনকালীন সরকার গঠন হবে। আর এটা পুরোপুরি প্রধানমন্ত্রীর এখতিয়ার। – সমকাল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*